ঢাকা | |
সংবাদ শিরোনাম :
টাঙ্গাইলে বানভাসিদের ডায়রিয়ার প্রকোপসহ ছড়াচ্ছে পানিবাহিত রোগ কোটা নিয়ে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল আজ কলম্বিয়াকে কাঁদিয়ে কোপার সর্বোচ্চ চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা ‘তুমি কে, আমি কে? রাজাকার, রাজাকার' স্লোগান, মধ্যরাতে উত্তপ্ত ঢাবি মধ্যরাতে ক্যাম্পাসে ইবি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মধ্যরাতে উত্তাল ঢাবি, কোটা আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভ যে কারণে পিছিয়েছে আর্জেন্টিনা-কলম্বিয়া ফাইনাল ট্রাম্পকে হত্যাচেষ্টাকারী স্নাইপারের গাড়ি ও বাড়িতে মিললো ‘বিস্ফোরক’ আরসা সন্ত্রাসীদের সঙ্গে গোলাগুলিতে পুলিশ সদস্য আহত সাতক্ষীরায় যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় সাইকেল আরোহী নিহত

সড়ক থেকে তুলে নিয়ে মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ, আটক ১

হাতিয়ায় পরীক্ষা দিয়ে বাড়ী ফেরার পথে এক মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে জোর করে তুলে নিয়ে যায়। ভুক্তভোগীর বাবা
  • আপলোড সময় : ৪ জুলাই ২০২৪, দুপুর ২:৩৪ সময়
  • আপডেট সময় : ৪ জুলাই ২০২৪, দুপুর ২:৩৪ সময়
সড়ক থেকে তুলে নিয়ে মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ, আটক ১ ছবি : সংগৃহীত
হাতিয়ায় পরীক্ষা দিয়ে বাড়ী ফেরার পথে এক মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে জোর করে তুলে নিয়ে যায়। ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার (৩ জুলাই) বিকেলে উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড বড়দেইল গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ ও ইউপি চেয়ারম্যান গিয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার করে।

মামলায় অভিযুক্ত ১নং আসামী সোহেল (২৫) বুড়িরচর ইউনিয়নের রহমত উল্যার ছেলে ও ৩নং আসামী বিউটি (৪৮) রহমত উল্যার স্ত্রী। অপর অভিযুক্ত ২নং আসামী মো. শাহীন (২০) একই ইউনিয়নের বড়দেইল গ্রামের মো. সাখাওয়াতের ছেলে।

বুড়িরচর আহমদিয়া আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাও: সুলতান আহমেদ বলেন, আমাদের মাদ্রাসার দশম শ্রেনীর অর্ধবার্ষিক পরীক্ষা চলছে। বিকেলে পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে আমাদের দশম ছাত্রীকে বখাটে সোহেল সহ তার সঙ্গীরা জোর করে তুলে নিয়ে যায়। পাশের ছোট ছোট ছাত্রীদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়।

পরে স্থানীয় চেয়ারম্যানকে খবর দিলে তিনি এবং স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসে তাকে উদ্ধার করে।

উল্লেখ্য এর আগেও সদু মেস্তুরির তেমুহনীতে এ সকল বখাটে ছেলেরা মেয়েদেরকে উত্যক্ত করার বিষয়ে মাদ্রাসার পক্ষ থেকে হাতিয়া থানা এবং সাগরিয়া পুলিশ ফাঁড়িকে অভিহিত করার পর কয়েকবার অভিযান দেওয়া হয়েছে। অত্র মাদ্রাসায় প্রায় দেড় হাজার ছাত্রছাত্রী পড়ালেখা করে। এরকমের ঘটনায় এলাকার ছাত্রী ও অভিভাবক মহলে উদ্বেগ বিরাজ করছে। অভিভাবকগণ কিভাবে নিশ্চিন্তে তাদের মেয়েদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠাবে?

হাতিয়া থানা অফিসার ইন চার্জ (ওসি) জিসান আহমেদ জানান, এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা একটি মামলা দায়ের করেন। ২ আসামী পলাতক থাকলেও ৩নং আসামীকে আটক করা হয়েছে। অপর আসামীদের গ্রেপ্তারের তৎপরতা অব্যহত রয়েছে।
  • বিষয়:

নিউজটি আপডেট করেছেন: বাংলা নিউজ নেটওয়ার্ক ডেস্ক।

বাংলা নিউজ নেটওয়ার্ক ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
কমেন্ট বক্স
সর্বশেষ সংবাদ
ইসরায়েলে হামলা বন্ধের শর্ত দিল হিজবুল্লাহ

ইসরায়েলে হামলা বন্ধের শর্ত দিল হিজবুল্লাহ