ঢাকা | |
সংবাদ শিরোনাম :
টাঙ্গাইলে বানভাসিদের ডায়রিয়ার প্রকোপসহ ছড়াচ্ছে পানিবাহিত রোগ কোটা নিয়ে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল আজ কলম্বিয়াকে কাঁদিয়ে কোপার সর্বোচ্চ চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা ‘তুমি কে, আমি কে? রাজাকার, রাজাকার' স্লোগান, মধ্যরাতে উত্তপ্ত ঢাবি মধ্যরাতে ক্যাম্পাসে ইবি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মধ্যরাতে উত্তাল ঢাবি, কোটা আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভ যে কারণে পিছিয়েছে আর্জেন্টিনা-কলম্বিয়া ফাইনাল ট্রাম্পকে হত্যাচেষ্টাকারী স্নাইপারের গাড়ি ও বাড়িতে মিললো ‘বিস্ফোরক’ আরসা সন্ত্রাসীদের সঙ্গে গোলাগুলিতে পুলিশ সদস্য আহত সাতক্ষীরায় যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় সাইকেল আরোহী নিহত

কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার ঘরোয়া উপায়

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে অন্যতম একটি সমস্যা হলো কোষ্ঠকাঠিন্য। অনেকের টয়লেটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কেটে যায়, কিন্তু পেট পরিষ্কার
  • আপলোড সময় : ১৯ জুন ২০২৪, সকাল ৯:২৪ সময়
  • আপডেট সময় : ১৯ জুন ২০২৪, সকাল ৯:২৪ সময়
কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার ঘরোয়া উপায়
আমাদের দৈনন্দিন জীবনে অন্যতম একটি সমস্যা হলো কোষ্ঠকাঠিন্য। অনেকের টয়লেটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কেটে যায়, কিন্তু পেট পরিষ্কার হয় না। এ নিয়ে অস্বস্তিতে ভোগেন তাঁরা। মলত্যাগ যদি সপ্তাহে তিনবারের কম অথবা পরিমাণে খুব কম হয়, অনেকক্ষণ ধরে চেষ্টা করেও মলত্যাগ না হয়, অথবা মল অস্বাভাবিক রকমের শক্ত বা শুকনো হয়, তাহলে তাকে কোষ্ঠকাঠিন্য বলে। বিভিন্ন কারণে এ সমস্যা দেখা দেয়। তবে অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপন ও খাদ্যাভ্যাস কোষ্ঠকাঠিন্যের পেছনে প্রধান ভূমিকা পালন করে। তাই এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন ও স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

১. প্রতিদিন প্রচুর পানি ও তরল এবং যথেষ্ট আঁশযুক্ত খাবার খান। গোটা শস্য, শাকসবজি, ফলমূল যেমন বেল, পেঁপে ইত্যাদি হলো আঁশযুক্ত খাবার।
২. পাশাপাশি দুশ্চিন্তা বা মানসিক চাপমুক্ত জীবনযাপনের চেষ্টা করুন।
৩. যত দূর সম্ভব মল চেপে না রাখার অভ্যাস করা এবং নিয়মিত ব্যায়াম ও হাঁটাচলার অভ্যাস গড়ে তোলা।
৪. ইসবগুলের ভুসি, অ্যালোভেরা বা ঘৃতকুমারীর মতো ঘরোয়া টোটকাও কোষ্ঠকাঠিন্যের সমাধানে বেশ কাজে আসে।
৫. কিছু কিছু ওষুধ কোষ্ঠকাঠিন্যের জন্য দায়ী (যেমন নিয়মিত আইবুপ্রোফেন জাতীয় ব্যথানাশক ওষুধ সেবন, আয়রন বা ক্যালসিয়াম বড়ি)। এসব বিষয় খেয়াল করতে হবে। কফি, পিৎজা, ফাস্ট ফুড বা পাস্তার মতো খাবার এড়িয়ে চলতে হবে। চকলেট, ভাজাপোড়া, লাল মাংস (গরু, খাসি ইত্যাদি), চিপস, প্রচুর চিনিযুক্ত বেকারি খাদ্য যেমন কেক, পেস্ট্রি কেক এবং আয়রন ক্যাপসুল, কাঁচাকলা ইত্যাদি কম খাওয়াই ভালো।
৬. এতেও উপকার না পেলে চিকিৎসকের পরামর্শ মোতাবেক ওষুধ সেবন বা ব্যবহার করা যায়। তবে এগুলো বেশি পরিমাণে বা নিয়মিত সেবন করা অনুচিত। কারণ, এতে মলদ্বারের স্বাভাবিক কার্যক্ষমতা বাধাপ্রাপ্ত হতে পারে।


  • বিষয়:

নিউজটি আপডেট করেছেন: স্টাফ রির্পোটার।

বাংলা নিউজ নেটওয়ার্ক ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
কমেন্ট বক্স
সর্বশেষ সংবাদ
ইসরায়েলে হামলা বন্ধের শর্ত দিল হিজবুল্লাহ

ইসরায়েলে হামলা বন্ধের শর্ত দিল হিজবুল্লাহ